loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • ঈদ উপলক্ষে নভোএয়ার-এর অতিরিক্ত ফ্লাইট

  • শেখ হাসিনাকে আজ গণসংবর্ধনা দেবে আওয়ামী লীগ

প্রথমবারের মতাে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলাে ক্রোয়েশিয়া


প্রথমবারের মতাে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলাে ক্রোয়েশিয়া

নকআউট পর্বের দুইটি ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার জয় এসেছিলো টাইব্রেকারে। এদিনও মনে হচ্ছিলো পেনাল্টি শুট আউটেই নির্ধারিত হতে যাচ্ছে তাঁদের ভাগ্য। কিন্তু তা হতে দেননি মারিও মান্দজুকিচ। অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয়ার্ধে গোল করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় এনে দেন তিনি। ফলে ১৯৬৬-এর চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনালের টিকেট পেলো ক্রোয়েশিয়া। সুযোগ আছে শিরোপা জিতে নেওয়ারও। ক্রোয়েশিয়া শিরােপা জিতলে বিশ্ব পাবে নতুন কোনো চ্যাম্পিয়ন দল।

ইংল্যান্ডকে কাঁদিয়ে প্রথমবারের মতো ফুটবল বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে ক্রোয়েশিয়া। বুধবার (১১ জুলাই) রোমাঞ্চকর সেমিফাইনালে ২-১ গোলে ইংলিশদের স্বপ্নভঙ্গ করেন পেরিসিচ-মান্দজুচিকরা। আগামী রবিবার (১৫ জুলাই) বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফাইনালে ১৯৯৮-এর চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের মোকাবেলা করবে একই বছর তৃতীয় স্থান অর্জনকারী ক্রোয়েশিয়া। এর আগে শনিবার (১৪ জুলাই) তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ইংল্যান্ড মুখােমুখি হবে বেলজিয়ামের।

লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১২টায়  রাশিয়া বিশ্বকাপে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া। শুরুটা অবশ্য ভালােই করেছিলাে একবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। প্রথম আক্রমণেই গোল পায় তাঁরা। কিয়েরান ট্রিপ্পিয়ারের গোলে মাত্র পাঁচ মিনিটে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় হ্যারি কেইনরা। ফ্রি-কিকের মাধ্যমে বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারে নিজের প্রথম গোলের দেখা পান রক্ষণভাগের খেলোয়াড় কিয়েরান। প্রথমার্ধে  অবশ্য বল দখলে কিছুটা এগিয়ে ছিলো ক্রোয়েটরা।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেয় ক্রোয়েশিয়া। এর ফল পেতেও বেশি দেরি হয়নি। ৬৮ মিনিটে ইভান পেরিসিচের দুর্দান্ত গোলে খেলায় সমতায় ফেরে তাঁরা (১-১)। ডানপ্রান্ত থেকে সিমে ভ্রাসালিকোর লম্বা ক্রস থেকে পা লাগিয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন এই উইঙ্গার।

ম্যাচের নির্ধারিত সময় ও যোগ হওয়া তিন মিনিটে সেমিফাইনালটি ১-১ গোলে সমতায় থাকে। ফলে অতিরিক্ত ৩০ মিনিট খেলার প্রয়ােজন হয়।

অতিরিক্ত সময়ে আরও মরিয়া হয়ে খেলতে থাকা ক্রোয়েশিয়া দ্বিতীয়ার্ধে মারিও মান্দজুকিচের গোলে এগিয়ে যায় (২-১ )। ১০৯ মিনিটে বাঁদিক থেকে আসা বলে ফ্লিক করে গোল উদযাপন করেন এই স্ট্রাইকার।

পিছিয়ে পড়ে গোল শোধের  খুব চেষ্টা করলেও তেমন জোরালো আক্রমণ করতে পারেনি ইংলিশরা। উল্টো আরও পিছিয়ে যেতে পারতো দলটি।  ১১৫ মিনিটে মার্সেলো ব্রোজোভিচের শট ফিরিয়ে দেন ইংলিশ গোলরক্ষক। শেষ মুহূর্তেও ক্রামাসিচের দারুণ এক শট ফেরান পিকফোর্ড। শেষ পর্যন্ত ২-১ ব্যবধানের জয় নিয়েই স্বপ্নের ফাইনালের মঞ্চে পা দেন লুকা মদ্রিচ-রাকিটিচরা।

Loading...