loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • ইয়াং বয়েজের কাছে হেরেই গেল ইউভেন্টাস

  • সানের জোড়া গোলে ম্যানসিটি গ্রুপ সেরা

  • নিজেদের মাঠে মস্কোর কাছে বিধ্বস্ত হলো রিয়াল

  • জেএসসি-জেডিসি ও প্রাথমিক সমাপনীর ফলাফল ২৪ ডিসেম্বর

এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন সাকিব?


এশিয়া কাপে খেলতে পারবেন সাকিব?

গত জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় কাপ চলাকালীন সময়ে পাওয়া আঙুলের আঘাতে ব্যাট করতে অস্বস্তি হচ্ছিলো সাকিব আল হাসানের। সাময়িক সমাধান হিসেবে এতোদিন খেলছিলেন ইনজেকশন নিয়ে। স্থায়ীভাবে সুস্থ হতে দরকার অস্ত্রোপচারের। আর সেটা এশিয়া কাপের আগেই করাতে চান সাকিব। তেমনটা হলে টাইগারদের অন্যতম প্রধান এই ভরসাকে পাওয়া যাবে না আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় এশিয়া কাপে। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলে বৃহস্পতিবার (৯ অগাস্ট) সকালে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। টেস্ট সিরিজ হারলেও ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্ট সিরিজ জিতে ফুরফুরে মেজাজেই দলের সঙ্গে এসেছেন দুই ফরম্যাটের অধিনায়ক সাকিব। জানিয়েছেন দল ও নিজের হাতের অবস্থা, ‘‘কি অবস্থা সেটা ফিজিও ভালো বলতে পারবেন। সবাই আমরা জানি যে এখন সার্জারি করতে হবে। তা নিয়েও আলোচনা হচ্ছে -  কোথায় করলে ভালো হয়, কবে করলে ভালো হয়। তবে আমি মনে করি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করে ফেলা ভালো।’’

১৫ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। প্রথম ম্যাচেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এশিয়া কাপের পরে জিম্বাবুয়ে সিরিজ, এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। জানুয়ারিতে বিপিএল। এর পরে নিউজিল্যান্ড সফর আছে, আছে বিশ্বকাপ। 

ব্যস্ত সূচির দিকে তাকিয়ে এশিয়া কাপের আগেই অস্ত্রোপচারের সম্ভাবনা জানালেন সাকিব, ‘‘সম্ভবত এশিয়া কাপের আগেই (অস্ত্রোপচার) হবে।’’

এর আগে বিসিবি চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছিলেন অস্ত্রোপচার হলে দেড় থেকে দুইমাস খেলার বাইরে থাকতে হবে সাকিবকে। ডা. দেবাশীষ বলেছেন, সার্জনের পরামর্শ মতো শর্ট টার্ম ব্যবস্থার জন্য ইনজেকশনটা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু লং টার্মে এটা খুব একটা কাজ করবে না। দল ফ্লোরিডা যাওয়ার পরে সেখানকার ডাক্তার একটি ইনজেকশন দিয়েছেন। তিনিও বলেছেন এমন ব্যবস্থা খুবই অল্প সময়ের জন্য। তাই সাকিব, ম্যানেজমেন্টসহ সবাই মিলে বসে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ এই অপারেশন হলে পুনর্বাসনের জন্য প্রায় দেড়-দুইমাস সময় লাগবে। আর সেটি এখন করা হলে নিশ্চিতভাবেই সাকিবকে পাওয়া যাবে না আগামী মাসের এশিয়া কাপে।

জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় কাপের ফাইনালে ফিল্ডিং করতে গিয়ে বা হাতের কনিষ্ঠ আঙুলে আঘাত পেয়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্ট সিরিজ বাইরে থাকতে হয়েছেিলো  সাকিবকে। শুরুতে ছিলেন না নিদাহাস কাপেও। অস্ট্রেলিয়া গিয়ে ইনজেকশন নিয়ে যোগ দেন দলে। আঘাত পেয়ে তিনি পুরো বাঁকাতে পারছেন না কনিষ্ঠ আঙুল। এতে বল করতে সমস্যা না হলেও ব্যাটিংয়ে অস্বস্তি হচ্ছিলো বলে জানিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

Loading...