loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • তৃতীয় ড্রিমলাইনার গাংচিল উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • গ্রামীণফোনে নতুন সিএফও যোগ দিয়েছেন

  • ‘এসআইটি’ পদ্ধতিতে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত

  • ঢাবি’র ৫২তম সমাবর্তনের নিবন্ধনের সময়সীমা বৃদ্ধি

  • ফ্রাঙ্ক রিবেরি এখন ফিওরেন্টিনায়

এনআইডি যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ উদ্বোধন


এনআইডি যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ উদ্বোধন

জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাচাইয়ের গেটওয়ে ‘পরিচয়’ (www.porichoy.gov. bd) উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। বুধবার (১৭ জুলাই) আগারগাঁওস্থ আইসিটি টাওয়ারে প্রধান অতিথি হিসেবে সজীব ওয়াজেদ ওয়েবসাইটটি উদ্বোধন করেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিতে এই অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, এটুআই-এর পলিসি অ্যাডভাইজার আনির চৌধুরীসহ আইসিটি বিভাগের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ-সময় উপস্থিত ছিলেন। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

সজীব ওয়াজেদ বলেন, সরকারি-সেবা ডিজিটাইজ করে সহজে ও দ্রুততম সময়ে জনগণের মাঝে পৌঁছে দিতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, সাধারণ নাগরিকদের সহযোগিতা করা, সময় ও অর্থ বাঁচানো ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিশন। এরই অংশ হিসেবে বেসরকারি খাতের সাথে পার্টনারশিপ করে এই সফল উদ্যোগ। জনগণের তথ্যসমৃদ্ধ একটি জাতীয় ডেটাবেইস তৈরির জন্য নির্বাচন কমিশন ও আইসিটি বিভাগকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর থেকেই সরকারি সেবাগুলো মানুষের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে আসতে কাজ করে যাচ্ছে আইসিটি বিভাগ। তারই বহিঃপ্রকাশ এ-ধরনের সেবা। তিনি ‘পরিচয়’ প্রকল্পকে সফল করার জন্য জাতীয় নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানান।

উল্লেখ্য, ‘পরিচয়’ হচ্ছে একটি গেইটওয়ে সার্ভার - যা নির্বাচন কমিশনের জাতীয় ডেটাবেইসের সাথে সংযুক্ত। এটি এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রাম - যা সরকারি, বেসরকারি বা ব্যক্তিগত যেকোনো সংস্থার গ্রাহকদের জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করতে পারবে নিমেষেই। 

এনআইডি যাচাই করার জন্য এখন থেকে আর আগের মতো ৩-৫ কর্মদিবস অপেক্ষা করতে হবে না। কোনো প্রতিষ্ঠান সফ্টওয়্যারের মাধ্যমে ‘পরিচয়’ গেইটওয়ে সার্ভারে সংযোগ স্থাপন করলে জাতীয় পরিচয়পত্র শনাক্তের ফলাফল সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পেয়ে যাবে। এটি একই সাথে ভুয়া পরিচয়পত্র শনাক্ত করে জালিয়াতি প্রতিরোধ করবে এবং পরিষেবাগুলো আরও নিরাপদ করবে।

Loading...