loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • মাঠে এমবাপে, পিএসজি’র বড় জয়

  • শ্রীলঙ্কা দলে ফিরলেন লাসিথ মালিঙ্গা

  • চট্টগ্রাম জহুর হকার্স মার্কেটে আগুন, শতাধিক দোকান পুড়লো

  • পিছিয়েছে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো

  • শেখ রাসেলের কবরে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন সংগঠনের শ্রদ্ধা

আরও জাপানি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


আরও জাপানি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার (৩০ মে) বাংলাদেশের জন্য আরও জাপানি বিনিয়োগের ব্যবস্থা করার জন্য জাইকার সহায়তা কামনা করেছেন। জাইকার প্রেসিডেন্ট শিনিচি কিতাওকা টোকিওতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলে তিনি এই আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তৃতা লেখক (সচিব) মো. নজরুল ইসলাম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য আরও জাপানি বিনিয়োগের ব্যবস্থা করার জন্য জাইকার সাহায্য চেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাপানের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের নতুন ক্ষেত্র অনুসন্ধান করে আরও বিনিয়োগের অনুরোধ জানান। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

স্বাধীনতা লাভের পর থেকে জাপানকে বাংলাদেশের সবচেয়ে কাছের বন্ধু হিসেবে বর্ণনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের পরে বিধ্বস্ত দেশ পুনর্গঠনে জাপান আমাদের অনেক সাহায্য করেছে।” তিনি তরুণ প্রজন্মকে সুদক্ষ করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের জন্য বাংলাদেশে একটি প্রশিক্ষণকেন্দ্র স্থাপনের জন্য জাইকার প্রতি আহ্বান জানান।

জাইকার প্রেসিডেন্ট অভিজ্ঞতা ও জ্ঞান বিনিময়ের মাধ্যমে মানবসম্পদের বিকাশের জন্য কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী জাইকার প্রেসিডেন্টকে জানান যে, জাপানের মতোই কৃষি থেকে শিল্পায়নের পথে চলতি পদক্ষেপের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ এখন কৃষি যান্ত্রিকীকরণের দিকে এগিয়ে চলছে। এ-প্রসঙ্গে, তিনি জাপানকে রোল মডেল হিসাবে উল্লেখ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে প্রধান্য বজায় রাখার লক্ষ্যে এশিয়ার উন্নত, উন্নয়নশীল ও স্বল্পোন্নত দেশগুলোর একসাথে কাজ করার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন।

শেখ হাসিনা ২০১৬ সালে ঢাকায় সন্ত্রাসী হামলায় জাপানের নাগরিকদের মৃত্যুর কথাও স্মরণ করেন এবং তাঁর দুঃখ ও সহানুভূতি প্রকাশ করেন।

জাইকা প্রেসিডেন্ট তৃতীয় মেয়াদে পুননির্বাচিত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান।

বাংলাদেশ ও জাপানের দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে দ্বিপাক্ষিক আলোচনাকে ফলপ্রসূ হিসাবে বর্ণনা করে জাইকার প্রেসিডেন্ট বলেন, তাঁরা এখন বাংলাদেশের সাথে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবেন। জাইকা প্রেসিডেন্ট বলেন, তাঁরা বাংলাদেশে গবেষণা কর্মসূচি আরও জোরদার করবে।

অন্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী এএইচএম মুস্তাফা কামাল, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান, এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মো. আবুল কালাম আজাদ, পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক, জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা এ-সময় উপস্থিত ছিলেন। 

Loading...