loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • ইতালিয়ান কাপের শিরোপা জিতলো ইউভেন্টাস

  • ইউরোপের খেলার আশা টিকিয়ে রাখলো ম্যানইউ

  • মেসিবিহীন ইন্টার মায়ামির গোলশূন্য ড্র

  • অষ্টাদশ শিক্ষক নিবন্ধনে গড় পাসের হার ৩৫.৮০ শতাংশ

  • সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দ্বিতীয় ধাপের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশিত

এবার রেন-এর কাছে পিএসজি’র পরাজয়


এবার রেন-এর কাছে পিএসজি’র পরাজয়

বায়ার্ন মিউনিখের কাছে হেরে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নেওয়ার দশ দিনের মধ্যে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)-কে আরেকটি পরাজয় মেনে নিতে হলো। বায়ার্নের বিরুদ্ধে হারের পরপরই ফ্রেঞ্চ লিগে এর আগের ম্যাচেই পয়েন্ট তালিকার পঞ্চদশ স্থানে থাকা ব্রেস্ট-এর বিপক্ষে পয়েন্ট খোয়ানোর অবস্থা থেকে কোনোমতে জয় পেয়েছিলেন লিওনেল মেসি-কিলিয়ান এমবাপেরা। কিন্তু, রোববার (১৯ মার্চ) রেন-এর বিপক্ষে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েই মাঠ ছাড়তে হলো দলটিকে। চলতি মৌসুমে রেন-এর কাছে পিএসজি’র এটি দ্বিতীয় পরাজয়।

অবশ্য, ম্যাচে এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি করেছিল পিএসজি-ই। কিন্তু এমবাপের গোল বাতিল হয়ে যায় অফসাইডে। এর পরপরই (৪৫ মিনিটে) কার্ল তোকো একাম্বির দারুণ এক গোলে এগিয়ে যায় রেনে। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই কালিমুয়েন্দু আবার স্তব্ধ করেন পিএসজিকে; রেনেকে এগিয়ে দেন ২-০ গোলে।

এটি এই মৌসুমে পিএসজি’র লিগে চতুর্থ পরাজয়। ২০২৩ সালের শুরুটা একেবারেই ভালো যাচ্ছে না দলটির। লিগের চারটি পরাজয়ের প্রতিটিই নতুন বছর শুরু হওয়ার পর। গত জানুয়ারিতেই রেন-এর কাছে হেরেছিল পিএসজি।

পিএসজি’র এই পরাজয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী মার্শেইয়ের কিছুটা সুবিধাই হলো। রেঁস-এর বিপক্ষে দিনের অপর ম্যাচটি জিতলেই পিএসজি’র সঙ্গে দলটি পয়েন্টের ব্যবধান সাতে নামিয়ে আনতে পারবে।

এদিন আরও একটি গৌরব হারিয়েছে পিএসজি। ২০২১ সালের এপ্রিলের পরে এই প্রথম নিজেদের মাঠ পার্ক দে প্রিন্সেসে পরাজয় দেখলো ক্লাবটি।

রোববার পুরো ম্যাচেই সুযোগ নষ্টের খেসারত দিয়েছে মেসি-এমবাপের দল। একই সঙ্গে বিশ্বের সেরা ফুটবলারদের স্বাভাবিক নৈপুণ্যেরও ঘাটতি ছিল ম্যাচে। 

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বাদ পড়ার পরে লিগ ওয়ান-এর শিরোপা-ই যখন পিএসজি’র একমাত্র লক্ষ্য, সেখানে এই পরাজয় কোচ ক্রিস্টোফ গাল্টিয়া’র ওপর চাপ আরও বৃদ্ধি করবে – তা বলাই যায়।

এমবাপে ম্যাচে দুইটি ভালো সুযোগ পেয়েছিলেন। প্রথমটি ২৬ মিনিটে, দ্বিতীয়টি দ্বিতীয়ার্ধের পঞ্চম মিনিটে। যাহােক, দুটিই ঠেকিয়ে দেন রেনে গোলকিপার স্টিভ মানদান্দা। পক্ষান্তরে, রেনে গোলের সুযোগ সদ্ব্যবহার করেছে ভালােভাবেই।

মেসি চেষ্টা করেছেন; কিন্তু, সেই চেষ্টা বিকশিত হয়নি সেভাবে। মাঠে তাঁকে বোঝা গেছে, খুব একটা আনন্দে নেই বিশ্বকাপজয়ী এই আর্জেন্টাইন তারকা। অবশ্য, শুধু মেসিই নন, রেন-এর বিপক্ষে পুরো পিএসজিকেই অসুখী মনে হয়েছে।

Loading...