loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • নতুন করে আরও ৭২ ঘণ্টার তাবদাহের সতর্কতা জারি

  • সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের সংশোধিত ফলাফল প্রকাশিত

  • অভিনেতা ওয়ালিউল হক রুমি আর নেই

  • এফএ কাপে টাইব্রেকারে জিতে ফাইনালে ম্যানইউ

  • ক্লাসিকোতে বার্সাকে হারিয়ে শিরোপার আরও কাছে রিয়াল

দেশে হতে যাচ্ছে স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড


দেশে হতে যাচ্ছে স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম ও স্পেস ইনোভেশন ক্যাম্প-এর উদ্যোগে দেশে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে “স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড”। মহাকাশ বিজ্ঞান, স্পেস রোবটিক্স, স্পেস টেকনোলজি ও ইনোভেশন, সোলার সিস্টেম, জ্যোতির্বিদ্যা, তারা ও নাক্ষত্রিক ঘটনাসমূহ, গ্যালাক্সি, স্পেস প্রোগ্রামিং এবং কসমোলজি নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের অগ্রহী করে গড়ে তুলতে এই আয়োজন। এ-উপলক্ষ্যে ঢাকায় শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) একটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

৬ থেকে ১৪ বছর বয়সী বাচ্চারা তিনটি গ্রুপে এই অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণ করতে পারবে। উদ্বোধনের আগে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বিজ্ঞানভিত্তিক বিভিন্ন ধরনের এক্টিভিটি কেন গুরুত্বপূর্ণ – তা নিয়ে একটি রাউন্ড টেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আয়োজনটিতে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন – বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াড কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিক্স অ্যান্ড মেকাট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের অধ্যাপক ড. লাফিফা জামাল।

অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন – আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশ এর উপ-উপাচার্য মো. আবদুর রহমান, বুয়েট-এর ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ও কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাদিম চৌধুরী, বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড-এর ইউএসএ কান্ট্রি হেড মোহাম্মাদ মাহাদী উজ জামান, ইংলিশ অলিম্পিয়াডের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আমানুল্লাহ, ওয়ার্ল্ড রোবট অলিম্পিয়াড-বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক ও কান্ট্রি হেড রেদওয়ান ফেরদৌস, ল্যাবরেটরি অফ স্পেস সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজির রিসার্চ এসোসিয়েট, স্কুল অফ ইঞ্জিনিয়ারিং, ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির আব্দুল্লাহ হিল কাফি, ক্রিয়েটিভ বিজনেস গ্রুপের চিফ অপারেটিং অফিসার জিয়া উদ্দিন মাহমুদ, নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ- ২০১৮-এর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের ‘টিম অলিক’-এর টিম লিড আবু সাবিক মাহাদি এবং ২০২২ এর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের ‘টিম ডায়মন্ড’-এর টিম লিড তিশা খন্দকার।

প্রধান বক্তা ড. লাফিফা জামাল বলেন, “আমাদের শিশু-কিশোররা মেধাবী; তাই আমরা এই ছোট বয়স থেকেই যদি মহাকাশ নিয়ে এই ধরনের কাজে তাঁদেরকে সম্পৃক্ত করতে পারি, তবে, ভবিষতে আমাদের দেশের বাচ্চাদের মধ্য থেকেই আমরা আমাদের স্বপ্নের বাস্তবরূপ দেখতে পারবো। মহাকাশ গবেষণায় আমরাও একদিন বহুদূর এগিয়ে যাবো।

আয়োজনটি সম্পর্কে স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াড-এর বাংলাদেশের প্রধান আরিফুল হাসান অপু বলেন, “আমি দেখেছি যে, মহাকাশ অনুসন্ধানের গল্পগুলো শিশুদের উপর গভীর প্রভাব ফেলে৷ এই দুঃসাহসিক কাজ, কৌতূহল এবং বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারের গল্পগুলো কেবল বাচ্চাদের কল্পনাকেই বিমোহিত করে না বরং এটি একটি মূল্যবান শিক্ষামূলক অভিজ্ঞতাও তাঁদের জন্য ৷ এই গল্পগুলোর মাধ্যমে, শিশুরা মহাবিশ্বের বিস্ময়গুলো খুঁজতে থাকে এবং প্রয়োজনীয় সমস্যা সমাধানের বিষয়গুলো সম্বন্ধে জানার চেষ্টা করে।”

আয়োজনটিতে সহ-আয়োজক হিসেবে থাকবে – জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর, একাডেমিক পার্টনার আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ বাংলাদেশ এবং নলেজ পার্টনার ক্রিয়েটিভ জুনিয়র।

স্পেস এক্সপ্লোরেশন অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণের জন্য রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে এই ঠিকানায় - www.spaceolympiadbd.com

– সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

Loading...