loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • ৩৪ বলে ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

  • শ্রীলংকার স্বপ্নভঙ্গ; সুপার এইটে দক্ষিণ আফ্রিকা

  • টি-২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রথম জয়

  • প্রীতি ম্যাচে গোলে পর্তুগালের বড় জয়

  • বিশ্বকাপ বাছাই: লেবাননের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের পরাজয়

ঢাকা ও প্যারিসের মধ্যে দুইটি চুক্তি স্বাক্ষরিত


ঢাকা ও প্যারিসের মধ্যে দুইটি চুক্তি স্বাক্ষরিত

ঢাকা ও প্যারিস সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ এবং বাংলাদেশের নগর অবকাঠামো উন্নয়ন বিষয়ে দু’টি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ‘করবী’ হলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর উপস্থিতিতে চুক্তিপত্র দু’টি স্বাক্ষর করে বিনিময় করা হয়। চুক্তি দু’টির একটি হলো – ‘ইমপ্রুভিং আরবান গভর্নেন্স অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার প্রোগ্রাম’ বিষয়ে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) ও ফ্রান্সের ফ্রান্স  ডেভেলপমেন্ট সংস্থার (এএফডি) মধ্যে ক্রেডিট ফ্যাসিলিটি অ্যাগ্রিমেন্ট এবং আরেকটি হলো – বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিএল) ও বঙ্গবন্ধু-২ আর্থ অবজারভেশন স্যাটেলাইট সিস্টেম-সম্পর্কিত ফ্রান্সের এয়ারবাস ডিফেন্স অ্যান্ড স্পেস এসএএস-এর মধ্যে সহযোগিতার বিষয়ে লেটার অফ ইনটেন্ট (এলওআই) চুক্তি। ইআরডি সচিব শরিফা খান ও এজেন্স ফ্রান্সেইস দো ডেভেলপমেন্ট (এএফডি)’র কান্ট্রি ডিরেক্টর বোনুই শসেত নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে প্রথম চুক্তিটিতে স্বাক্ষর করেন। দ্বিতীয় চুক্তিটিতে স্বাক্ষর করেন – বিএসসিএল চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ ও স্পেস সিস্টেম, এয়ারবাসের সেলস ও মার্কেটিং বিভাগের সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট স্টিফেন ভেসভাল। খবর – স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শেখ হাসিনা ও ইমানুয়েল ম্যাখোঁর মধ্যে একান্ত বৈঠকের পরে একটি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে, মাখোঁ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছলে, শেখ হাসিনা তাঁকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বাগত জানান। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের আগে তাঁরা ফটো সেশনে অংশ নেন। পরে, তাঁরা একটি যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ের যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় ত্যাগের আগে, মাখোঁ পরিদর্শক বইতে স্বাক্ষর করেন। এর আগে, সকালে ফরাসি প্রেসিডেন্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে তিনি রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন।

এটি বাংলাদেশে ম্যাখোঁর প্রথম ও কোনো ফরাসি প্রেসিডেন্টের দ্বিতীয় সফর। এর আগে, ১৯৯০ সালের ২০-২৪ ফেব্রুয়ারি ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট ফাঁসোয়া মিতেরা বাংলাদেশ সফর করেছিলেন। 

১৯৯০ সালের শুরুর দিক থেকে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য-সম্পর্ক অনেক দূর এগিয়েছে। বাংলাদেশ ও ফ্রান্সের মধ্যে মোট বাণিজ্য ২১০ মিলিয়ন ইউরো থেকে বর্তমানে ৪.৯ বিলিয়ন ইউরোতে উন্নীত হয়েছে এবং রপ্তানির ক্ষেত্রে ফ্রান্স হলো পঞ্চম দেশ। ফরাসি কোম্পানিগুলো এখন প্রকৌশল, জ্বালানি, মহাকাশ ও পানিসহ বিভিন্ন খাতে সম্পৃক্ত।

শেখ হাসিনা ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাখোঁর আমন্ত্রণে ২০২১ সালের নভেম্বরে ফ্রান্স সফর করেছিলেন।

ভারতের নয়াদিল্লিতে জি-২০ সম্মেলনে যোগদানের পরে ম্যাখোঁ দুই দিনের সরকারি সফরে গত রোববার সন্ধ্যায় ঢাকায় পৌঁছেন। ফরাসি প্রেসিডেন্ট রোববার রাত ৮টা ১০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে শেখ হাসিনা তাঁকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বাগত জানান। সেখানে তাঁকে লালগালিচা সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এ-সময় উভয় দেশের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়। ফরাসি প্রেসিডেন্টকে গার্ড অফ অর্নার ও ২১টি তোপধ্বনির মাধ্যমে স্বাগত জানানো হয়।

বিমানবন্দর থেকে ম্যাখোঁ হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে যান। সেখানে তিনি তাঁর সম্মানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী আয়োজিত আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে অংশ নেন। পরে, ফরাসি প্রেসিডেন্ট স্থানীয় ব্যান্ডদল ‘জলের গান’-এর সঙ্গীত আয়োজন উপভোগ করতে ধানমন্ডিতে অবস্থিত ব্যান্ডটির স্টুডিওতে যান। এ-সময় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট সোমবার বিকেলেই ঢাকা ত্যাগ করবেন।

Loading...