loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • ৩৪ বলে ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

  • শ্রীলংকার স্বপ্নভঙ্গ; সুপার এইটে দক্ষিণ আফ্রিকা

  • টি-২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রথম জয়

  • প্রীতি ম্যাচে গোলে পর্তুগালের বড় জয়

  • বিশ্বকাপ বাছাই: লেবাননের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের পরাজয়

ডার্বিতে মিলানকে বিধ্বস্ত করেছে ইন্টার


ডার্বিতে মিলানকে বিধ্বস্ত করেছে ইন্টার

ইন্টার মিলান সিরি-আ লিগে শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) এসি মিলানকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে। বড় এই জয়ে চার ম্যাচে শতভাগ জয় নিয়ে ইউভেন্টাসকে দুই পয়েন্টে পেছনে ফেলে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে ইন্টার। দিনের আরেক ম্যাচে নতুন উন্নীত জেনোয়ার সাথে ২-২ গোলে ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছে নাপোলি। ইউভেন্টাস দিনের শুরুতে লাৎসিওকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে মিলানকে হটিয়ে লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে । এক পয়েন্ট পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে মিলান। মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিউক্যাসল ইউনাইটেডকে প্রথম ম্যাচে স্বাগত জানানোর আগে সিরি-আ লিগে মৌসুমের প্রথম পরাজয়ে কিছুটা হলেও পিছিয়ে থাকবে মিলান। 

সান সিরোর উচ্ছসিত সমর্থকদের সামনে মিলান ডার্বিতে দুই দলই সবসময় কিছুটা নার্ভাস থাকে। যদিও সব ধরনের প্রতিযোগিতায় এদিন টানা পঞ্চম ডার্বি জিতে ইন্টার নগর-প্রতিদ্বন্দ্বীদের তুলনায় নিজেদের সেরা দাবী করতেই পারে। হেনরিক মাখিটারিয়ানের দুই গোলের সাথে মার্কোস থুরামের শক্তিশালী গোল ও হাকান কালহানগ্লু ও ডেভিড ফ্রাত্তেসির ম্যাচের শেষ ভাগের দুই গোলে ইন্টারের জয় নিশ্চিত হয়েছে। সিমোনে ইনজাগির দল দুর্দান্ত এই পারফরমেন্স দিয়ে প্রমান করেছে কেন তারা মিলানকে হারিয়ে গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে খেলেছিল। নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের বড় ব্যবধানে হারিয়ে এবারের সিরি-আ শিরোপা জয়ে নিজেদের ফেবারিট প্রমান করেছে।

মাখিটারিয়ান ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘আমরা মৌসুমের শুরুটা দুর্দান্ত করেছি। এখন এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চাই। আমরা এখানে সবাই একই লক্ষ্য নিয়ে খেলতে এসেছি, প্রতিপক্ষ যে-ই হোক না কেন। সম্ভাব্য সেরা দল বেছে নিতে কোচও পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।’

ইন্টারের জার্সি গায়ে থুরামও মূল দলে জায়গা ধরে রেখেছেন। মাখিটারিয়ানের পাঁচ মিনিটের প্রথম গোলে দলে নতুন আসা এই ফরাসি অ্যাটাকারের অবদান ছিল। থুরামের পাসে ফেডেরিকো ডিমার্কোর অ্যাসিস্টে মাখিটারিয়ান গোল করে ইন্টারকে শুরুতেই এগিয়ে দেন। ৩৮ মিনিটে ডেন্জেল ডামফ্রাইসের কাট-ব্যাকে থুরাম ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। প্রথম গোলের মতোই মিলানের জার্মান ডিফেন্ডার মালিক থিয়াও কোনো প্রতিরোধ গড়তে পারেননি।

দুই গোলে পিছিয়ে থেকে মিলান অনেকটাই ঝিমিয়ে পড়ে। ৫৭ মিনিটে অলিভার জিরুর সাথে বল আদান-প্রদান করে রাফায়েল লিয়াও দুর্দান্ত গোলে মিলান শিবিরে কিছুটা স্বস্তি ফিরিয়ে আনেন। মৌসুমে এটি তাঁর দ্বিতীয় গোল। এবারের লিগে ইন্টারের এটাই প্রথম গোল হজম। ৬৯ মিনিটে লাউতারো মার্টিনেজের অ্যাসিস্টে মাখিটারিয়ান নিজের দ্বিতীয় গোল করে মিলানের অ্যাওয়ে সমর্থকদের নিশ্চুপ করে দেন। এরপর ৭৯ মিনিটে কালহানগ্লুর স্পট কিক থেকে গোল ও স্টপেজ টাইমে ফ্রাত্তেসির দারুন ফিনিশিংয়ে ইন্টারের বড় নিশ্চিত হয়।

ম্যাচ শেষে মিলান কোচ স্টিফানো পিউলি বলেছেন, ‘সমর্থকদের কাছে দুঃখ প্রকাশের প্রয়োজন আছে বলে মনে হয় না। ইন্টারের কাছে পাঁচ গোল হজমের মতো দল আমরা মোটেই না। আমরা অবশ্যই হতাশ, কিন্তু ইচ্ছা করে কোনো কিছু না করলে, সেজন্য ক্ষমা চাওয়ার কিছু নেই।’

অন্যদিকে, বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নাপোলি এবারের ইতালিয়ান শীর্ষ লিগে নতুন উন্নীত জেনোয়ার সাথে দুই গোলে পিছিয়ে থেকে শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলের স্বস্তির ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে। আন্তর্জাতিক বিরতির আগে লাৎসিওর কাছে পরাজিত রুডি গার্সিয়ার দল এই ড্রয়ে ইন্টারের থেকে পাঁচ পয়েন্ট পিছিয়ে গেল। শেষ ১৫ মিনিটে দুই ইতালিয়ান তারকা গিয়াকোমো রাসপাডোরি ও মাত্তেও পলিটানোর গোলে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের এক পয়েন্ট নিশ্চিত হয়। 

ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টস ইতালিকে পলিটানো বলেছেন, ‘আমাদের এখনো অনেক কাজ বাকি। এই ম্যাচের আগে আমরা প্রস্তুতির জন্য খুব কম সময় পেয়েছি। দলের প্রায় বেশিরভাগ খেলোয়াড়ই আন্তর্জাতিক দায়িত্ব পালনে নিজ নিজ জাতীয় দলে যোগ দিয়েছিল।’

৪০ মিনিটে মাত্তিয়া বানি জেনোয়াকে এগিয়ে দেন। ৫৬ মিনিটে কেভিন স্ট্রুটমানের পাসে ইতালিয়ান স্ট্রাইকার মাতেও রেটেগুই স্বাগতিকদের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন। জুলাইয়ে বোক্যা জুনিয়র্স থেকে আসার পরে এনিয়ে দ্বিতীয় গোল করলেন রেটেগুই। দুই গোলে এগিয়ে থাকার পরে জেনোয়া জয়ের ব্যপারে অনেকটাই আশাবাদী ছিল। কিন্তু নাপোলি কখনই ম্যাচ ছেড়ে দেয়নি। ৭৬ মিনিটে রাসপাডোরির গোলে প্রথম নাপোলি শিবিরে স্বস্তি ফিরে আসে। 

ম্যাচ শেষ হওয়ার ছয় মিনিট আগে পিওতর জিয়েলিনস্কির লফটেড পাস থেকে পলিটানোর দুর্দান্ত ভলিতে নাপোলির এক পয়েন্ট নিশ্চিত হয়।

Loading...