loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • রোববার পবিত্র শবেবরাত

  • ছায়ানটে সমধারা’র দশম কবিতা উৎসব অনুষ্ঠিত

  • বঙ্গবন্ধু অ্যাপ’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • স্টপেজ টাইমের গোলে আর্সেনালকে হারালো পোর্তো

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সার সাথে ড্র করেছে নাপোলি

রায়োর সাথে ড্র করে চতুর্থ স্থানে নামলো বার্সা


রায়োর সাথে ড্র করে চতুর্থ স্থানে নামলো বার্সা

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা লা লিগায় রায়ো ভায়োকানোর সাথে ১-১ গোলে ড্র করে লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে নেমে গেছে। এর মাধ্যমে বার্সেলোনার ব্যর্থতার ধারাবাহিকতাই বজায় থাকলো।  এবারে লিগে বিস্ময়করভাবে শীর্ষস্থান ধরে থাকা জিরোনা ও দ্বিতীয় স্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সামনে এখন সুযোগ – আগামী দুইদিন নিজ নিজ ম্যাচে জয়ী হয়ে বার্সেলোনার থেকে ব্যবধান বাড়িয়ে নেওয়া। এই মুহূর্তে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে জিরোনা। দুই পয়েন্ট পিছিয়ে রিয়াল রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। সমান ৩১ পয়েন্ট নিয়ে পরের দুই স্থানে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ও বার্সা।

এদিন ৩৯ মিনিটে উনাই লোপেজের দূরপাল্লার গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিক রায়ো। ৮২ মিনিটে ফ্লোরিয়ান লায়েউনের আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফেরে ক্যাটালান ক্লাবটি। বেশ কয়েক সপ্তাহ যাবত নিজেদের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে না পারা বার্সেলোনার জন্য এই ড্র আরও শঙ্কা তৈরী করেছে। আগামী মঙ্গলবার পোর্তোর বিপক্ষে ম্যাচে জিততে পারলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নক আউট পর্ব নিশ্চিত হবে বার্সার। 

ম্যাচ শেষে বার্সা কোচ জাভি বলেছেন, ‘আমি মনে করি দুই অর্ধে  আমরা দুই রকম খেলেছি। প্রথমার্ধে আধিপত্য দেখালেও ততটা আগ্রাসী হয়ে খেলতে পারিনি। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা গোল করেছি। তবে আরো কিছু সুযোগ পেয়েছিলাম। আমরা যদি লিগ জিততে চাই, তবে এ-ধরনের ম্যাচে অবশ্যই জয়ী হতে হবে। আমাদের অবশ্যই আত্ম-সমালোচনা করতে হবে। আধুনিক ফুটবলে অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়ে গেছে।’

পিঠের সমস্যার কারণে মাঠের বাইরে রয়েছেন বার্সেলোনা নিয়মিত গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টার স্টেগান। তার পরিবর্তে মূল দলে সুযোগ পেয়েছেন ইনাকি পেনা। মধ্যমাঠে ইনজুরিগ্রস্ত গাভির পরিবর্তে নিজেকে ফিট করে তোলা ফ্রেংকি ডি জংকে দলভুক্ত করেছিলেন জাভি। ১৯ বছর বয়সী গাভি লিগামেন্টের গুরুতর ইনজুরিতে পুরো মৌসুমের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন। তাঁর সম্পর্কে বার্সা কোচ মন্তব্য করেছেন, দলের প্রাণকে হারিয়ে পুরো বার্সেলোনাই এখন হতাশ। ম্যাচের আগে তাঁর নামের টি-শার্ট পড়ে সতীর্থরা মাঠে নেমেছিল যেখানে লেখা লেখা ছিল, ‘আমরা সবাই তোমার পাশে আছি, গাভি।’

স্বাগতিক রায়ো বেশ ভালোভাবেই ম্যাচ শুরু করেছিল। এর আগে চারবারের মোকাবেলায় তিনবারই তারা বার্সাকে পরাজিত করেছে। এর মধ্যে ঘরের মাঠে ভায়েকাস স্টেডিয়ামে জিতেছে দুইবার। ৩৯ মিনিটে লোপেজ ৩০ গজ দুর থেকে জোরালো শটে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন।

ফ্রান্সিসকো রড্রিগেজের দলের বিপক্ষে গাভির গভীরতা, হৃদয় ও সাহস মিস করেছে বার্সা, এমনটাই মনে করেন কোচ। যদিও বিরতির পর কিছুটা হলেও ম্যাচে ফিরে আসে বার্সেলোনা। ফেরান তোরেস ও পেড্রি গোলের সুযোগ নষ্ট না করলেও তখনই এগিয়ে যেতে পারতো সফরকারী দলটি। রাফিনহার শট পোস্টে লেগে ফেরত আসে। রবার্ট লেভান্ডোস্কির ফিরতি শট লাইনের উপর থেকে ক্লিয়ার হয়। ম্যাচ শেষের আট মিনিট আগে অবশ্য আর কোনো ভুল করেনি ক্যাটালানরা। বাল্ডের ক্রস থেকে লেওনের আত্মঘাতী গোলে সমতায় ফিরে বার্সেলেনো। 

ডি জং বলেছেন, ‘আমরা মোটেই ভালো খেলতে পারিনি। নিজেদের নামের প্রতি আমরা সুবিচার করতে পারিনি। আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে। পরিকল্পনা ভালো ছিল, আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। সবাই যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে। কিন্তু আমরা পজিশনের দিক থেকে সঠিক স্থানে ছিলাম না।’

এনিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে রায়োকে পরাজিত করতে ব্যর্থ হলো বার্সা।

দিনের আরেক ম্যাচে অ্যাটলেটিকো আঁতোয়ান গ্রিজম্যানের ৬৪ মিনিটের দুর্দান্ত গোলে মায়োর্কার বিপক্ষে জয়ী হয়ে বার্সেলোনাকে গোল ব্যবধানে পেছনে ফেলেছে। অ্যাটলেটিকোর হয়ে এদিন ক্যারিয়ারের ৬০০তম ম্যাচ খেলতে মাঠে নেমেছিলেন মিডফিল্ডার কোকে। ম্যাচটিকে কঠিন হিসেবে মন্তব্য করে এই মিডফিল্ডার বলেছেন মায়োর্কা খুব সিরিয়াস ম্যাচ খেলেছে।

অ্যাটলেটিকো কোচ দিয়েগো সিমিওনে বলেছেন, ‘৬০০ ম্যাচ একটি অতি অসাধারণ নম্বর। কেউই তাঁকে ফ্রি’তে কিছু দেয়নি, পরিশ্রম করে সে সবকিছু আদায় করে নিয়েছে। আমাদের মধ্যে অনেক স্মৃতি রয়েছে।’

দলের হয়ে জয়সূচক গোলটি ছিল গ্রিজম্যানের ক্যারিয়ারে ৩০১তম গোল। লুইস আরাগোনেসের ক্লাব রেকর্ড ১৭৩তম গোলের প্রায় কাছাকাছি পৌঁছে গেছে ১৭০ গোল করা এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

অ্যাটলেটিকো মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ফেয়েনুর্ড সফরে যাবে। এই ম্যাচে জয়ী হতে পারলে শেষ ১৮ নিশ্চিত হবে সিমিওনের দলের।

সপ্তদশ স্থানে থাকা মায়োর্কা রেলিগেশন জোন থেকে এক পয়েন্ট দূরে রয়েছে।

Loading...