loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • আফিফ-নুরুলের জুটিতে ডাবল টি-২০ লিড টাইগারদের

  • অসুস্থতা কাটিয়ে ইন্টারে ফিরেছেন এরিকসেন

  • জাপানকে পরাজিত করে ফাইনালে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ স্পেন

  • টাইব্রেকারে মেক্সিকোকে হারিয়ে অলিম্পিক ফুটবলের ফাইনালে ব্রাজিল

  • ঢাবি গার্হস্থ্য অর্থনীতির স্নাতক শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন ১৪ অগাস্ট পর্যন্ত বৃদ্ধি

সন্ধ্যার পর সুপারমুন, ব্লু মুন ও চন্দ্রগ্রহণ


সন্ধ্যার পর সুপারমুন, ব্লু মুন ও চন্দ্রগ্রহণ

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সন্ধ্যার পর একসঙ্গে দেখা যাবে সুপারমুন, ব্লু মুন ও চন্দ্রগ্রহণ। এক বিরল পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। সূর্য এবং চাঁদের মাঝ দিয়ে পৃথিবীর পরিক্রমণের সময় পৃথিবীর ছায়ায় ঢাকা পড়বে চাঁদ। সংঘটিত হবে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ। বাংলাদেশের আকাশে অঞ্চল ভেদে সন্ধ্যা ৭টা ২৯ মিনিট থেকে রাত ১টা ৮ মিনিট পর্যন্ত দেখা যাবে এই দৃশ্য।

চন্দ্রগ্রহণের সময় সূর্যের পরোক্ষ আলো চাঁদের ওপর পড়ার পর পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের ভেতর দিয়ে তার পথ তৈরি করে। যেখানে বেশির ভাগ ছড়িয়ে থাকা নীল রঙের আলো ফিল্টার হয়। ফলে পৃথিবী থেকে চাঁদকে দেখা যায় রক্তিম। এ জন্য এই চাঁদকে বলা হয় ‘ব্লাড মুন’। আবার কোনো মাসে যদি দুবার পূর্ণ চাঁদ দেখা যায়, তাহলে দ্বিতীয়বারের পূর্ণ চাঁদকে বলা হয় ‘ব্লু মুন’।

পূর্ণ চাঁদ পৃথিবীর নিকটতম কক্ষপথের কাছাকাছি অবস্থান করলে তাকে বলা হয় ‘সুপার মুন’। সুপার মুনকে স্বাভাবিক পূর্ণ চাঁদের তুলনায় আকারে প্রায় ১৫ ভাগ বড় এবং ৩০ ভাগ উজ্জ্বল দেখায়। এই পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণে ওপরের তিনটি বৈশিষ্ট্যই রয়েছে । যা এবার ঘটছে ১৫০ বছর পর। এর আগে এই ধরণের পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল ১৮৬৬ সালের ৩১ মার্চ।

ঢাকার সময় সন্ধ্যা ৫টা ৩৭ মিনিটে চাঁদ দিগন্তের উপরে উঠার পর থেকে শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৫টা ৪৮ মিনিটে আংশিক গ্রহণ ও সন্ধ্যা ৬টা ৫১ মিনিটের দিকে পৃথিবীর ছায়া চাঁদকে সম্পূর্ণভাবে গ্রাস করবে। এ সময় সূর্য, পৃথিবী ও চাঁদ একটি রেখায় খুব কাছাকাছি অবস্থান করবে। চাঁদকে দেখা যাবে রক্তাভ নীল রঙে।

সূত্র: বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর ও অন্যান্য

Loading...