loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে ম্যান সিটি

  • রোনাল্ডোর জোড়া গোল, বিতর্কিত পেনাল্টিতে বিদায় ইউভেন্টাসের

  • দেশে বিনিয়োগের পরিবেশ আরও আকর্ষণীয় করতে প্রধানমন্ত্রী আহ্বান

দ্বিতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মোদির শপথ গ্রহণ


দ্বিতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে মোদির শপথ গ্রহণ

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর মন্ত্রীদেরকে নিয়ে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ গ্রহণ করেছেন। নয়াদিল্লীর রাষ্ট্রপতি ভবনে এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নরেন্দ্র মোদি তাঁর মন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের নিয়ে শপথ গ্রহণ করেন। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ এবং দক্ষিণ এশিয়ার নেতৃবৃন্দ, বলিউড তারকা ও নেতৃস্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বসহ প্রায় আট হাজার অতিথি উপস্থিত ছিলেন। খবর আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের।

ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে শপথ গ্রহণ করেছেন নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লির রাইসিনা হিলের ওই ভবনে সন্ধ্যা ৭টায় মোদি দেশের পঞ্চদশ প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন। তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। 

মোদির সঙ্গে প্রথমেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন রাজনাথ সিং, অমিত শাহ, নীতিন গডকরি, সদানন্দ গৌড়া। এরপর একে একে শপথ নেন অন্যান্যরাও। মোদির শপথ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্রপতি ছাড়াও তাঁর পত্নী রাশিদা খানম এবং মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক উপস্থিত ছিলেন।

নতুন মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন প্রায় ৫৮ জন। এঁদের মধ্যে ২৫ জন পূর্ণমন্ত্রী। ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) সভাপতি অমিত শাহ এবারই প্রথম মন্ত্রী হচ্ছেন। ওদিকে, পশ্চিমবঙ্গ থেকে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন দুই সাংসদ - বাবুল সুপ্রিয় ও দেবশ্রী চৌধুরী। 

নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে রাষ্ট্রপতিভবনে ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছিল। বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপধান, শিল্পপতি, বিশিষ্ট ব্যক্তি মিলিয়ে অতিথির সংখ্যা ছিল প্রায় আট হাজার।

ভারতের এবং বিশেষ করে বাংলাদেশ, ভুটান, মায়ানমার, নেপাল, শ্রীলংকা ও থাইল্যান্ডকে নিয়ে গঠিত বে অফ বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টি-সেক্টোরাল টেকনিক্যাল অ্যান্ড ইকোনোমিক কো-অপারেশন (বিমসটেক)-এর সদস্য রাষ্ট্রগুলোর অতিথিরা শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান প্রত্যক্ষ করেন।

অতিথিদের মধ্যে ছিলেন, বেশ কয়েকটি প্রতিবেশী রাষ্ট্রের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানগণ, ভারতের প্রায় সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং বিনোদন-জগতের কয়েকজন প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব। এছাড়া গত এক বছরে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে রাজনৈতিক সহিংসতায় নিহত বিজেপিকর্মীদের পরিবারের সদস্যরাও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন - শ্রীলংকার রাষ্ট্রপতি মৈত্রীপালা সিরিসেনা, মায়ানমারের রাষ্ট্রপতি উ. উইন মিয়িন্ত, মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী প্রবিন্দ জঘুনাথ, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোতে শেরিং ও কিরগিজ প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতি সুরোনবে জিনবেকভ। এছাড়া বিমসটেক-এর নেতৃত্বস্থানীয় সদস্য থাইল্যান্ডের কৃষিমন্ত্রী গ্রিসাদা বুনরাচ দেশটির প্রতিনিধিত্ব করেন।

২০১৪ সালের আগ পর্যন্ত শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান হত রাষ্ট্রপতি ভবনের দরবার হলে। কিন্তু আগেরবার মোদির শপথের সময় রীতি ভেঙে রাষ্ট্রপতি ভবনের বাইরের লনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান করা হয়। এবারও সেখানেই শপথ অনুষ্ঠান হয়েছে।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ভারতীয় লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি-নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ)-এর ব্যাপক বিজয় অর্জনের পর কোবিন্দ নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত করেন।

Loading...