loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • কোভিড-১৯ চিকিৎসায় উত্তরায় ৩০০ শয্যার হাসপাতাল উদ্বোধন

  • মাস্ক পরার নতুন পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

  • মোহাম্মদ নাসিমের অবস্থা সংকটাপন্ন, ৭২ ঘণ্টা নিবিড় পর্যবেক্ষণে

  • দেশে করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৩৫ জনের মৃত্যু, ২৬৩৫ জন শনাক্ত, সুস্থ ৫২১ জন

  • প্রবাসী-আয়ে ১৬.৫৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের নতুন রেকর্ড

ঢাকায় তিন দিনের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা’


ঢাকায় তিন দিনের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা’

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরস্থ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র (বিআইসিসি)-তে তিন দিনব্যাপী ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা’ বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) শুরু হচ্ছে। প্রযুক্তির মহাসড়ক ‘ফাইভ জি‘র বিস্ময়কর প্রভাব প্রদর্শনে বাংলাদেশে এই প্রথম এ-ধরণের মেলা হতে যাচ্ছে। মেলায় লাইভ দেখা যাবে ‘ফাইভ জি’। ‘ফাইভ জি’ প্রযুক্তি শুধু মোবাইলে কথা বলা কিংবা ইন্টারনেট ব্রাউজ করার প্রযুক্তি নয় - বিদ্যুৎ ও গ্যাসের মতো শিল্পের জন্য এই প্রযুক্তি অত্যাবশ্যকীয়।

ডিজিটাল বাাংলাদেশ মেলার প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে - ‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার প্রযুক্তির মহাসড়ক’। এ-উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী প্রদান করেছেন। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

মেলা উপলক্ষে বুধবার বিআইসিসি’র উইন্ডি হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার জানান, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ জয় বৃহস্পতিবার এই মেলা উদ্বোধন করবেন।

তিনি বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তি উদ্ভাবন, উপযোগী মানবসম্পদ সৃষ্টি, ডিজিটাল প্রযুক্তির আধুনিক সংস্করণের সাথে জনগণের সেতুবন্ধন তৈরি এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বাস্তবায়ন অগ্রগতি তুলে ধরা ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা’র অন্যতম মূল লক্ষ্য।

পরিবর্তিত বিশ্বে নতুন সভ্যতার রূপান্তরে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, আইওটি, রোবোটিক্স, বিগডেটা, ব্লকচেইন প্রভৃতি বিষয় মেলায় প্রদর্শন করা হবে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেছেন। এর পাশাপাশি ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির অগ্রগতি, অবস্থান ও ভবিষ্যত চ্যালেঞ্জসমূহ তুলে ধরা হবে।

মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, তিনি মনে করেন বাঙালি জাতির ইতিহাসের মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের বছরে (২০২০ সাল) ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলা আয়োজন অত্যন্ত সময়োচিত কর্মসূচি। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ কে এম রহমতুল্লাহ এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব নূর-উর-রহমান।

ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের সবচেয়ে প্রেরণাদায়ী এক দর্শন - এ-কথা উল্লেখ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, এই কর্মসূচি এ-দেশের দুর্বার গতিতে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাওয়ার সোপান।

তিনি উল্লেখ করেন, প্রজ্ঞাবান রাজনীতিক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন কর্মসূচি - দিনবদলের সনদ ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি - গত এগারো বছরে বদলে দিয়েছে চিরচেনা বাংলাদেশ, অভাবনীয় রূপান্তর ঘটেছে মানুষের জীবনযাত্রার। অনাহার, অর্ধাহার, দারিদ্র্য ও অনুন্নত যোগাযোগাযোগসহ অভাব ও অপ্রতুলতার মতো শব্দগুলো আজ হারিয়ে যেতে বসেছে ৫৫হাজার বর্গমাইলের এই জনপদ থেকে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, মেলায় আইএসপিসহ ৮২টি প্রতিষ্ঠান, প্যারেন্টাল কন্ট্রোল, ট্রিপল প্লে (এক ক্যাবলে ল্যান্ডফোনের লাইন, ইন্টারনেট ও ডিশ এন্টেনা সংযোগ), মোবাইল অ্যাপ্স, ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা ও ডিজিটাল প্রযুক্তি ইত্যাদি প্রদর্শন করা হবে।

এছাড়া ওয়ালটন, স্যামসাং, সিম্ফনির মতো প্রতিষ্ঠানগুলো তাঁদের উৎপাদিত পণ্য দেখাবে। দেশি সফ্টওয়্যার কোম্পানিগুলো তাঁদের তৈরি সফটওয়্যার ও সেবা উপস্থাপন করবে। টেলিকম অপারেটরগুলো ভয়েস, ইন্টারনেট ও মূল্য সংযোজিত সেবা (ভিএএস - ভ্যাস) দেখাবে। এছাড়া জেডটিই, হুয়াওয়ে, নকিয়া, এরিকসন ফাইভ-জি প্রযুক্তি প্রদর্শন করবে; দেখাবে লাইভ ব্যবহারের উপযোগিতাও। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট টেলিমেডিসিন ও এটিএম সেবা দেখাবে। জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ভিশন মেলার মাধ্যমে টেলিমেডিসিন দেখাবে। এই মেলায় ২৫টি স্টল, ২৯টি মিনিপ্যাভিলিয়ন ও ২৮টি প্যাভিলিয়ন থাকবে।

পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান, মোবাইল ফোন অপারেটরসহ আরও অনেক প্রতিষ্ঠান এতে অংশ নেবে। মেলায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আলাদা কর্নার থাকবে। সেই কর্নারে প্রযুক্তির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর জীবনী তুলে ধরা হবে। মেলায় ১৩টি সেমিনারের মাধ্যমে সরকারের মন্ত্রী এবং দেশি ও বিদেশি অভিজ্ঞ বক্তারা বর্তমান প্রযুক্তি ও আগামীদিনে প্রযুক্তির গন্তব্য নিয়ে কথা বলবেন। ট্যালেন্ট গ্যাপ, ডিজিটাল অর্থনীতি, ডিজিটাল গ্রোথ, এসডিজি’র অ্যাচিভমেন্ট ইত্যাদি বিষয়ে বক্তারা আলোচনা করবেন।

মেলায় ডিজিটাল ডাকঘর উদ্যোক্তা সম্মেলন হবে বৃহস্পতিবার দুপুরে। একইদিন বিকেলে ডিজিটাল অর্থনীতি: শিল্প ও বাণিজ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তিবিষয়ক সেমিনারে প্রধানমন্ত্রীর অর্থনীতিবিষয়ক উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

এই মেলা শেষ হবে আগামী ১৮ জানুয়ারি। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।

Loading...