loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • ‘স্মাইল্স’-এর অষ্টম বর্ষে পদার্পন, টিকেটের মূল্যে ১০% ছাড়

  • ঈদ উপলক্ষে রিগ্যাল ফার্নিচারে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়

  • ১৬ জন ভারতীয় নিয়ে গৌহাটি গেল নভোএয়ার

  • দেশের প্রথম ভার্চুয়াল সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট ২০২০’ শুরু

ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমে ২০ লাখ টাকার বেশি রাখা যাবে না


ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমে ২০ লাখ টাকার বেশি রাখা যাবে না

ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের বিনিয়োগসীমা দুই-তৃতীয়াংশ কমিয়েছে সরকার। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ (আইআরডি) আজ বৃহস্পতিবার এ-বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এখন থেকে ডাকঘর সঞ্চয়ে একক নামে বিনিয়োগ করা যাবে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা; যা আগে ছিল ৩০ লাখ টাকা। যুগ্ম নামে বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা ছিল ৬০ লাখ টাকা – যা এখন কমিয়ে ২০ লাখ টাকা করা হয়েছে।

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে বর্তমানে সাধারণ ও মেয়াদি – এই দু’টি হিসাব চালু রয়েছে। হিসাব দু’টির বৈশিষ্ট্য হলো – সব শ্রেণি-পেশার বাংলাদেশি নাগরিকই এতে টাকা রাখতে পারেন। নাবালকের পক্ষেও হিসাব খোলা ও টাকা রাখার সুযোগ রয়েছে। উভয় হিসাবেই নমিনি নিয়োগ যেমন করা যায়, তেমনি তা পরিবর্তন/বাতিলও করা যায়।

সাধারণ হিসাবে এক মাসেও মুনাফা উত্তোলন যায়। মেয়াদি (তিন বছর) হিসাবে ছয় মাস পরপর মুনাফা তোলা যায়। স্বয়ংক্রিয় পুনর্বিনিয়োগের সুবিধাও রয়েছে এতে।

সাধারণ হিসাবে মুনাফার হার ৭.৫ শতাংশ। তিন বছর মেয়াদি হিসাবের মুনাফার হার ১১.২৮ শতাংশ। অবশ্য, মেয়াদ পূর্তির আগে ভাঙানোর ক্ষেত্রে – এক বছর পূর্ণ হলে মুনাফা ১০.২০ শতাংশ, দুই বছর হলে ১০.৭০ শতাংশ।

ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের মুনাফার হার প্রায় অর্ধেক কমিয়ে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছিল। তবে, সেটি নিয়ে প্রায় সব মহলে সমালোচনা হলে মুনাফার আগের হারই বহাল রাখে সরকার। নতুন প্রজ্ঞাপন জারি করে পূর্বের হার কার্যকর করা হয় গত ১৭ মার্চ থেকে। দুই মাস পরে এবার আরেকটি প্রজ্ঞাপন জারি হলো বিনিয়োগসীমা নিয়ে।

Loading...