loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • ‘স্মাইল্স’-এর অষ্টম বর্ষে পদার্পন, টিকেটের মূল্যে ১০% ছাড়

  • ঈদ উপলক্ষে রিগ্যাল ফার্নিচারে ১৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়

  • ১৬ জন ভারতীয় নিয়ে গৌহাটি গেল নভোএয়ার

  • দেশের প্রথম ভার্চুয়াল সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট ২০২০’ শুরু

দেশে করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৩৫ জনের মৃত্যু, ২৬৩৫ জন শনাক্ত, সুস্থ ৫২১ জন


দেশে করোনায় ২৪ ঘন্টায় ৩৫ জনের মৃত্যু, ২৬৩৫ জন শনাক্ত, সুস্থ ৫২১ জন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘন্টায় বাংলাদেশে ৩৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এনিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা হলো ৮৪৬। এদিকে দেশে করোনা- আক্রান্তের সংখ্যা ৬৩ হাজার ছাড়িয়েছে। বর্তমানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত লোকের সংখ্যা ৬৩,০২৬ জন। গত ২৪ ঘন্টায় ২,৬৩৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে সুস্থ হয়েছেন ৫২১ জন। ফলে, এ-পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৩,৩২৫ জন।

আজ দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ-তথ্য জানান।

ডা. নাসিমা জানান, নমুনা পরীক্ষায় আজ শনাক্তের হার ২১.১০ শতাংশ। মোট শনাক্তের ৭১ শতাংশ পুরুষ এবং ২৯ শতাংশ নারী। শনাক্ত বিবেচনায় আজ সুস্থতার হার ২১.১৪ শতাংশ ও মৃত্যুর হার ১.৩৪ শতাংশ।

তিনি আরও জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২,৯০৯টি। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের ৫০টি পরীক্ষাগারে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২,৪৮৬টি। এ-পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৮৫১টি।

তিনি জানান, মৃত্যুবরণকারী ৩৫ জনের মধ্যে ২৮ জন পুরুষ ও সাতজন নারী। বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে একজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুইজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিনজন, ১১ থেকে ২০ বছরের দুইজন রয়েছেন। 

তাঁদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা ২০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের আটজন, সিলেট বিভাগের দুইজন, রাজশাহী বিভাগের তিনজন এবং বরিশাল বিভাগের দুইজন।

হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ২৫ জন, বাসায় নয়জন এবং মৃত অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন একজন। এ-পর্যন্ত মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে পুরুষ ৭৭.৪৬ শতাংশ এবং নারী ২২.৫৪ শতাংশ বলে ডা. নাসিমা জানান।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে আরও ৩১৪ জনকে এবং আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৯৮ জন। এ-পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৩,৯৪৫ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে রয়েছেন ৭,১৬২ জন।

দেশে মোট আইসোলেশন শয্যা রয়েছে ১৩,২৮৪টি। এর মধ্যে ঢাকায় ৭,২৫০টি এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ৬,০৩৪টি শয্যা রয়েছে। সারাদেশে আইসিইউ শয্যা সংখ্যা ৩৯৯টি এবং ডায়ালাইসিস ইউনিট ১০৬টি।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক মিলিয়ে কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে ১,৭৮৯ জনকে এবং কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ২,৮১১ জন। এ-পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে ২ লাখ ৯৯ হাজার ২২২ জনকে। এ-পর্যন্ত মোট ছাড়া পেয়েছেন ২ লাখ ৪২ হাজার ৯২৫ জন। বর্তমানে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক মিলিয়ে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৫৬,২৯৭ জন। দেশের ৬৪ জেলা-উপজেলা পর্যায়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য ৬২৯টি প্রতিষ্ঠান প্রস্তুত রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সেবা দেয়া যায় ৩১,৯৯১ জনকে।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, কেন্দ্রীয় ঔষাধাগার থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) এ-পর্যন্ত সংগ্রহ ২৫ লাখ ৯ হাজার ১১৪টি এবং এ-পর্যন্ত বিতরণ হয়েছে ২২ লাখ ১৬ হাজার ৪৭৫টি। বর্তমানে ২ লাখ ৯২ হাজার ৬৬৭টি পিপিই মজুদ রয়েছে।

গত ২৪ ঘন্টায় হটলাইন নম্বরে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৯৭৩টি এবং এ-পর্যন্ত ৯৭ লাখ ৮২ হাজার ৫৬১টি ফোন কল রিসিভ করে স্বাস্থ্য সেবা ও পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস চিকিৎসাবিষয়ে ২৪ ঘন্টায় আরও পাঁচজন চিকিৎসক প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। এ-পর্যন্ত ১৬,২৭৯ জন চিকিৎসক অনলাইনে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। তাঁদের মধ্যে ৪,২১৭ জন স্বাস্থ্য বাতায়ন ও আইইডিসিআর-এর হটলাইনগুলোতে স্বেচ্ছাভিত্তিতে সপ্তাহে সাতদিন ২৪ ঘন্টা জনগণকে চিকিৎসাসেবা ও পরামর্শ দিচ্ছেন।

ডা. নাসিমা জানান, দেশের বিমানবন্দর, নৌ, সমুদ্রবন্দর ও স্থলবন্দর দিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ১,৩৮৫ জনসহ এ-পর্যন্ত বাংলাদেশে আগত ৭ লাখ ৮ হাজার ৫০৭ জনকে স্ক্রিনিং করা হয়েছে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার পরিস্থিতি তুলে ধরে তিনি জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ৫ জুন পর্যন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় করোনা-আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৩,২৬৬ জন। এ-পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ২২ হাজার ৮৬৩ জন।  গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৩৩২ জন এবং এ-পর্যন্ত ৮,৯৪২ জন। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ৫ জুন পর্যন্ত রিপোর্ট অনুযায়ী সারাবিশ্বে ২৪ ঘন্টায় করোনা-আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ১৮ হাজার ৫২৬ জন। এ-পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৬৫ লাখ ৩৫ হাজার ৩৫৪। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুবরণ করেছেন ৪,২৮৮ জন এবং এ-পর্যন্ত ৩ লাখ ৮৭ হাজার ১৫৫ জন।

আপনার সুস্থতা আপনার হাতে - এ-কথা পুনরুল্লেখ করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে তিনি সকলের প্রতি আবারও  আহ্বান জানান।

করোনা-সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে জনসমাগম এড়িয়ে চলা, মুখে মাস্ক পরা, সাবান-পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে বারবার হাত ধোয়া, ঘরের বাইরে গেলে হ্যান্ড গ্লাভস ব্যবহার, বেশি করে বিশুদ্ধ পানি পান ও তরল জাতীয় খাবার খাওয়া, ভিটামিন সি ও ডি সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া, ডিম, মাছ, মাংস, টাটকা ফলমূল ও সবজি খাওয়াসহ শরীরকে ফিট রাখতে নিয়মিত হালকা ব্যায়াম করা এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয় বুলেটিনে।

Loading...