loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে কোয়ার্টার-ফাইনালে ম্যান সিটি

  • রোনাল্ডোর জোড়া গোল, বিতর্কিত পেনাল্টিতে বিদায় ইউভেন্টাসের

  • দেশে বিনিয়োগের পরিবেশ আরও আকর্ষণীয় করতে প্রধানমন্ত্রী আহ্বান

দেশের প্রথম ভার্চুয়াল সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট ২০২০’ শুরু


দেশের প্রথম ভার্চুয়াল সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট ২০২০’ শুরু

দেশে প্রথমবারের মতো টানা দুইদিনের ভার্চুয়াল সম্মেলন শুরু হয়েছে শুক্রবার (১০ই জুলাই) থেকে। “বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম” এর উদ্যোগে বাংলাদেশ ইনোভশন সামিট ২০২০ সম্পূর্ণ অনলাইন প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শুক্রবার দুপুরে এই সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, এমপি।

আয়োজকরা জানিয়েছেন দুইদিনের এই সম্মেলনে ১৭টি সেশনে ৩৩ জন বক্তা আলোচনা করবেন। বর্তমান বৈশ্বিক মহামারির প্রেক্ষিতে নতুন উদ্ভাবন এবং কর্মপরিকল্পনাকে মূল বিষয়বস্তু রেখে ‘বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট ২০২০’ সাজানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন অনুষ্ঠানের আয়োজকরা।

উদ্বোধনী সেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন “বর্তমান পৃথিবী মেধা এবং তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর। করোনার এই সময়ে এবং এর পরবর্তীতে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভরতা আরও ব্যাপক হবে। ডিজিটাল কানেক্টিভিটির সহজলভ্যতার কারণে এখন যেকেউ যেকোনো প্রান্তে থেকেই নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারবেন। তিনি বলেন ,অনলাইনের মাধ্যমেই আগামীতে সবকিছু পরিচালিত হবে, তাই তিনি সবাইকে তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে আরও মনযোগী হওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি আরও বলেন, “উদ্ভাবন যতো চর্চা হবে, তার সুফল মানুষই ভোগ করবে। তাই উদ্ভাবনের দিকে আমাদের মনোযোগ দিতে হবে।”

অনলাইনে এমন ধরণের উদ্যোগের জন্য তিনি বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামকে সাধুবাদ জানান।

এবারেরর ভার্চুয়াল সামিটে অংশগ্রহণের জন্যে ৯৪৭৫ জন অংশগ্রহণকারী অংশ নিচ্ছেন। আয়োজনের প্রথম দিন থাকছে বিজনেস সামিট এবং এবং দ্বিতীয় দিন ১১ই জুলাই থাকছে আইটি প্রফেশনালস মিট-আপ”।

এবারের আলোচ্য বিষয় – করোনার সময় একটি ব্যবসায় উদ্যোগের বিজনেস মডেল কেমন হতে পারে, ওয়ার্ক ফ্রম হোমকে কীভাবে কার্যকরীভাবে ব্যবহার করা যায়, তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে কীভাবে করোনা দুর্যোগ মোকাবেলা করা যায়, এইসময়ে হেল্থ ইনোভেশন কি কারণে প্রয়োজনীয়, করোনা-পরবর্তী সময়ে

কি ধরণের স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রয়োজন, চাকরির বাজারে নিজেকে প্রস্তুতকরণ, বাংলাদেশে উদ্যোগের ক্ষেত্রে বিনিয়োগের সম্ভাবনা, নারীদের দেশীয় উদ্যোগের অপার সম্ভাবনা, গেইম ডেভেলপমেন্ট, অনলাইন মাধ্যমের দ্বারা ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড, এমন প্রয়োজনীয় নানান বিষয়ে সম্যক ধারণা পেতে পারেন। এছাড়া, আইওটি, ডেটা সায়েন্স, প্রোগ্রামিং, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংসহ লোকাল এবং আন্তর্জাতিক বাজারে আইটি প্রফেশনাল্সদের চাকরির বাজার ও চাকরিতে সফল হওয়ার বিভিন্ন দিক নিয়ে কথা আলোচনা হবে।

বাংলাদেশ ইনোভেশন সামিট সম্পর্কে বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম-এর প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, “বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম ২০১৬ সালে যাত্রার শুরু থেকেই দেশে উদ্ভাবনী চিন্তা এবং কাজের প্রসারের ক্ষেত্রে ব্যাপক ভাবে কাজ করে আসছে। ফোরাম থেকে গৃহীত নানান উদ্যোগের মাধমে দেশে মহাকাশ বিজ্ঞান, স্টিম এজুকেশন, রোবটিক্স, এআইসহ নানান গুরুত্বপূর্ণ সমসাময়িক বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য নিয়মিত কাজ করা হচ্ছে। আমরা আশা করি এই সম্মেলন থেকে অংশগ্রহণকারীরা এই প্রতিকূল অবস্থায় নিজের মনোবল কীভাবে দৃঢ় রেখে আগামীর জন্য তৈরি হবেন, এর একটি দিকনির্দেশনা পাবেন। সবার কথা বিবেচনায় রেখে এবারের সম্মেলন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করার উদ্যোগ নিয়েছি।”

দু’দিনই সম্মেলনটি প্রতিদিন দুপুর তিনটা থেকে শুরু হয়ে রাত ১১ টা পর্যন্ত চলবে।

এবারের সামিটে কো-পার্টনার হিসাবে থাকছে উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম “নিজের বলার মতো একটি গল্প”। সহযোগী হিসেবে থাকছে ওমেন অ্যান্ড ই-কমার্স, প্রাইডসিস ইআরপি, ক্রিয়েটিভ আইটি, রাইজআপ ল্যাবস, বেবিলন রিসোর্সেস। লাইভ স্ট্রিমিং পার্টনার হিসেবে রয়েছে লাইভ টু ওয়েব।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম-এর ফেইসবুক পেইজ ও ইউটিউব চ্যানেল থেকে সম্মেলন দেখা যাবে।

ফেইসবুক লিঙ্কঃ https://bit.ly/2XHZtqh

ইউটিউব লিঙ্কঃ https://bit.ly/3geQeWd

– সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

Loading...