loader image for Bangladeshinfo

ব্রেকিং নিউজ

  • বাংলাদেশ ঈদ শুক্রবার

  • বায়তুল মুকাররমে ঈদের পাঁচটি জামাত

  • ম্যানইউ’র পরাজয়ে প্রিমিয়ার লিগ জিতলো ম্যানসিটি

  • দেশে প্রথমবারের মতো চললো মেট্রোরেল

  • ভারতের নতুন করোনা-ভ্যারিয়েন্ট বিশ্বের জন্য উদ্বেগজনক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

‘লকডাউন’ বাড়লাে ১৬ মে পর্যন্ত


‘লকডাউন’ বাড়লাে ১৬ মে পর্যন্ত

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধকল্পে চলমান লকডাউনের মেয়াদ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। অবশ্য, ৬ মে থেকে জেলার মধ্যে গণপরিবহন চলবে, তবে আন্তঃজেলা গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। এছাড়া, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচলও বন্ধ থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে এবং মন্ত্রিসভার সদস্যগণ সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যুক্ত হন। পরে, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে চলমান ‘লকডাউন’ বা বিধিনিষেধ আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সোমবার (৩ মে) মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ-তথ্য জানান। তিনি বলেন, বর্তমানে বিধিনিষেধ যেভাবে আছে, সেগুলো বলবৎ থাকবে। তবে, শহরের ভেতরে বাস বা গণপরিবহন চলাচল করবে। কিন্তু দূরপাল্লার বাস আগের মতোই বন্ধ থাকবে। খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান,  জেলার মধ্যে গণপরিবহন চলবে (৬ মে থেকে)। কিন্তু এক জেলা থেকে আরেক জেলায় গণপরিবহন বন্ধই থাকবে। এছাড়া,  ট্রেন ও যাত্রীবাহী নৌযানও বন্ধ থাকবে । আর যেসব মার্কেটে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানা হবে না, প্রয়োজনে সেসব মার্কেট বন্ধ করে দেওয়া হবে।  

দেশে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফা সংক্রমণ ঠেকাতে গত ৫ এপ্রিল এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন শুরু হয়। সেই বিধিনিষেধের ধারাবাহিকতা চলে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত। এরপর দ্বিতীয় ধাপে ১৪ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ শুরু হয়ে চলেছে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত। এরপর, লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে এর মেয়াদ ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়। তারপর আরও এক সপ্তাহ বাড়নোয় লকডাউন ৫ মে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

Loading...