loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • কাতার বিশ্বকাপের শেষ ষোলো পর্ব শনিবার শুরু

  • পর্তুগালকে হারিয়ে শেষ ষোলোয় দক্ষিণ কোরিয়া; উরুগুয়েের বিদায়

  • ব্রাজিলকে হারিয়েও গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিলো ক্যামেরুন

  • বেলজিয়ামের বিদায়; ৩৬ বছর পরে দ্বিতীয় রাউন্ডে মরক্কো

  • বিশ্বকাপ থেকে জার্মানির বিদায়; শেষ ষোলোতে জাপান-স্পেন

কোভিড-১৯ মহামারি অদূর ভবিষ্যতে শেষ হতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা


কোভিড-১৯ মহামারি অদূর ভবিষ্যতে শেষ হতে পারে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)’র মহাপরিচালক টেড্রোস আধানম গেব্রিয়াসিস বুধবার জেনেভায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯-এর কারণে মৃতের সংখ্যা গত সপ্তাহে কমেছে। ২০২০ সালের মার্চের পর থেকে সর্বনিম্ন স্তরে এবং করোনাভাইরাস মহামারি অদূর ভবিষ্যতে শেষ হতে পারে। অবশ্য, তিনি করোনা-মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইকে একটি ম্যারাথনের সাথে তুলনা করেছেন। তিনি বলেন ‘গত সপ্তাহে কোভিড-১৯ রােগে সাপ্তাহিক রিপোর্ট করা মৃতের সংখ্যা ২০২০ সালের মার্চের পর থেকে সর্বনিম্ন ছিল। তিনি বলেছেন ‘মহামারি শেষের ক্ষেত্রে আমরা কখনই ভালো অবস্থানে ছিলাম না। আমরা এখনও সেখানে নেই, তবে এর শেষ দেখা যাচ্ছে’।

করোনাভাইরাস মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইকে ম্যারাথনের সাথে তুলনা করে গেব্রিয়াসিস জোর দিয়ে বলেছেন, ‘আমরা (করোনার) শেষ লাইন দেখতে পাচ্ছি। আমরা একটি বিজয়ী অবস্থানে আছি। কিন্তু এখন লড়াই বন্ধ করার সবচেয়ে খারাপ সময়।’ এই কারণে, তিনি বিশ্বসম্প্রদায়কে সংক্রমণের বিস্তার রোধে অতিরিক্ত প্রচেষ্টা চালানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেন, আমরা যদি এখনই এই সুযোগটি গ্রহণ না করি, তাহলে আমরা কোভিডের আরও নতুন নতুন ধরন, আরও মৃত্যু, আরও ব্যাঘাত এবং আরও অনিশ্চয়তার ঝুঁকির মুখে পড়বো।  তিনি বলেন, ‘তাই আসুন, এই সুযোগটি কাজে লাগাই।’

তিনি সব দেশকে স্বাস্থ্যকর্মী এবং বয়স্ক ব্যক্তিদেরসহ সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ গোষ্ঠীকে সম্পূর্ণরূপে টিকা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এই শীর্ষ কর্মকর্তার মতে, এটি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দ্বারা নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌঁছানোর পথে একটি অগ্রাধিকারমূলক কাজ হলো – প্রতিটি দেশের অন্তত ৭০% বাসিন্দাকে টিকা দেওয়া।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) প্রকাশিত ডব্লিউএইচও’র সাপ্তাহিক মহামারি-সংক্রান্ত হালনাগাদ অনুসারে, গত সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী ৩.১ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন এবং প্রায় ১১ হাজার জনের মৃত্যু হয়েছে। সংক্রমণের সংখ্যা আগের সাত দিনের তুলনায় ২৮% কমেছে এবং মৃতের সংখ্যা ২২% কমেছে।

Loading...