loader image for Bangladeshinfo

শিরোনাম

  • রোববার পবিত্র শবেবরাত

  • ছায়ানটে সমধারা’র দশম কবিতা উৎসব অনুষ্ঠিত

  • বঙ্গবন্ধু অ্যাপ’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • স্টপেজ টাইমের গোলে আর্সেনালকে হারালো পোর্তো

  • চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বার্সার সাথে ড্র করেছে নাপোলি

সংগীতশিল্পী শিনেইড ও’কনো আর নেই


সংগীতশিল্পী শিনেইড ও’কনো আর নেই

চলে গেলেন জনপ্রিয় আইরিশ সংগীতশিল্পী ও অ্যাক্টিভিস্ট শিনেইড ও’কনো। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। গায়িকার পরিবারের বরাত দিয়ে মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে। তাঁর মৃত্যুর কারণ এখনো প্রকাশ্যে আনা হয়নি। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শিনেইড ও’কনোর পরিবার খুবই দুঃখের সঙ্গে গায়িকার মৃত্যুর খবর ঘোষণা করেছে। তাঁর মৃত্যুতে পরিবারের সদস্য ও বন্ধুরা মর্মাহত বলে জানানো হয়েছে। শিনেইড ও’কনোর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন আইরিশ রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী।

জানা যায়, ২০১৮ সালে এই গায়িকা ঘোষণা করেন – তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। তিনি জানান, নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম রেখেছেন শুহাদা সাদাকাত। অবশ্য, তিনি আগের নামেই সংগীত-ক্যারিয়ার চালিয়ে গেছেন।

তাঁর প্রথম অ্যালবাম ‘দি লায়ন অ্যান্ড দি কোবরা’ প্রকাশিত হয় ১৯৮৭ সালে, যেটি যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে শীর্ষ ৪০-এ জায়গা করে নিয়েছিল। তিনি ১৯৮৭ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ১০টি স্টুডিও অ্যালবাম প্রকাশ করেন।

শিনেইড ও’কনো ১৯৯০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘নাথিং কমপেয়ার্স টু ইউ’ গানটির জন্য বিশ্বজুড়ে বিশেষ পরিচিতি লাভ করেন। গানটি ওই বছরের জনপ্রিয় গানের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছিল।

শিনেইড ও’কনো ১৯৬৬ সালের ডিসেম্বরে রিপাব্লিক অফ আয়ারল্যান্ডের গ্লেনাগারিতে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর শৈশব খুবই কঠিন ছিল। জানা যায়, তাঁকে একজন সন্ন্যাসী গিটার কিনে দিয়েছিলেন এবং তিনি একজন সংগীত শিক্ষকের সঙ্গে শিনেইড ও’কনোকে সাক্ষাৎ করিয়ে দেন। সেখান থেকেই তাঁর সংগীত-ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল।

এই গায়িকা ব্যক্তিজীবনে সামাজিক ও রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গিতে খুবই স্পষ্টভাষী ছিলেন। তিনি ১৯৯১ সালে রোলিং স্টোন ম্যাগাজিনের দৃষ্টিতে বছরের সেরা শিল্পী মনোনীত হন এবং আন্তর্জাতিক নারী একক শিল্পী বিভাগে ব্রিট পুরস্কার অর্জন করেন।

Loading...